বাংলা কবিতা "চোর "



ছোট্টো ছেলেটি ফুটপাত ধরে উর্দ্ধশ্বাসে দৌড়চ্ছে, ভয়ার্ত দৃষ্টিতে মাঝে মাঝে পেছন ফিরে তাকাচ্ছে;
হাতে একটা ছোটো প্যাকেট।
কখনো ফুটপাত,কখনো গাড়ি রাস্তা
কখনো বা রাস্তা ক্রশ করে;
দুধারে মৃত্যুর নিশান
তবুও ভয় নেই তার মনে।
হাত পঁচিশ দুরে কতো গুলো
ষন্ডামার্কা লোক হাতে লাঠি নিয়ে
ধর ধর, চোর চোর.....পালিয়ে গেল…।

লাল সিগন্যালের আলোয়
শীততাপ নিয়ন্ত্রিত প্রাইভেট
গাড়িতে বসে হঠাৎ চোখ গেল সেই চিত্রনাট্যের দিকে;
বুকটা কেঁপে উঠল…
জানিনা! ছেলেটির ভাগ্যে কি আছে।
সিগন্যালের সবুজ আলোয়
গাড়ি গুলো চলছে বিদ্যুৎ গতিতে।
চিত্রনাট্য এখন আমার চোখের
আড়ালে।চারিদিকের জনসমুদ্রের
চোরাবালিতে সে হয়তো হারিয়ে
গেছে.....

এদিকের রাস্তাটা একটু ফাঁকা।
কিছুটা সবুজের ছোঁয়া লেগে আছে
ফুটপাতের দুপাশে,
হঠাৎ গাড়ির কালো কাচের ভিতর
দিয়ে চোখ গেল ফুটপাতে;
চারিদিকে লোক জনের ভিড়,কোলাহল…
এক টুকরো কথা কানে এল আমার
’চোর মরেছে ঠিক হয়েছে’
আমি কাচ নামিয়ে দেখার চেষ্টা করলাম...
এক ছিন্ন ভিন্ন বস্ত্রপরিহিতা,কঙ্কালসার মহিলা যেন সবেমাত্র ছুটি পেয়েছে …প্রেতলোক থেকে।
কোলে সেই ছোট্টো ছেলেটি রক্তে ভিজে জবজবে;
এরা মানুষ না অন্যকিছু?

আমার গাড়ি স্টার্ট নিয়েছে,
তবুও একটা কথা কানে এল-
’ ও দুদিন কিছু খায়নি, ও চোর না......’।।

স্বদেশ কুমার গায়েন[২০১২]





No comments

Powered by Blogger.